• বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৯

  • || ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

আজকের টাঙ্গাইল
সর্বশেষ:

কালিহাতীতে ব্যবসায়ীকে অপহরণ করে নির্যাতন ও ছিনতাই, আটক ২

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ১৬ নভেম্বর ২০২২  

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে ব্যবসায়ীকে অপহরণ করে প্লাস দিয়ে পুরুষাঙ্গ চেপে ধরে নির্যাতন ও ছিনতাইয়ের অভিযোগ উঠেছে মাদকাসক্ত ব্যবসায়ী উজ্জ্বল সরকার, মাসুদ রানাসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় সম্পৃক্ত দু’জনকে আটক করে মঙ্গলবার ১৫ নভেম্বর বিকেলে আদালতে প্রেরণ করেছে পুলিশ। আটককৃতরা- উপজেলার এলেঙ্গা উত্তরপাড়ার বেল্লাল হোসেনের ছেলে আফছার আলী (৩৭) ও তার স্ত্রী শিল্পী (৩০)।

মামলার বাদী আনোয়ার হোসেন ফটিক জানান, তিনি একজন কাপড়ের ব্যবসায়ী। গাজীপুরের ভবানীপুর শেখবাড়ীতে তার একটি গোডাউন রয়েছে। গ্রাহকদের চাহিদা মোতাবেক সারাদেশে তিনি পাইকারী ও খুচরা পণ্য সরবরাহ করে থাকেন। ওই সুবাদে কিছুদিন পূর্বে কালিহাতী উপজেলার এলেঙ্গা পৌরসভার রাজাবাড়ী গ্রামের মৃত আব্দুল জলিল সরকারের ছেলে উজ্জ্বল সরকার নামের কাপড় ব্যবসায়ী পরিচয়ে পরিচিত হয়ে স্বশরীরে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে তিন দফায় থ্রি পিস ক্রয় করেন। গত কয়েকদিন পূর্বে পুনরায় ৩০০ থ্রি পিচ অর্ডার করে ব্যস্ততার কারণ দেখিয়ে এলেঙ্গা পৌঁছে দিতে বললে আনোয়ার হোসেন জানান- “এতগুলো মালের অর্ডার, মালগুলো আমি যে পাঠামু তখন আপনি যদি বলেন এতগুলো মাল রিজেক্ট। তাই মালগুলো আপনি এসে দেখে নিয়ে যান।” তখন উজ্জ্বল সরকার ভূক্তভোগী আনোয়ার হোসেনকে মালগুলো (থ্রি পিচ) দিয়ে নগদ টাকা নিয়ে যেতে বলেন। সেই মোতাবেক তিনি গত শনিবার (১৩ নভেম্বর) ৩০০ থ্রি পিচ নিয়ে এসে ফোন দিলে উজ্জ্বল জানায় তিনি তার এলেঙ্গাতে নেই জানিয়ে মালগুলো নিতে তার স্ত্রী পরিচয়ে এক মহিলাকে পাঠিয়ে দেয়। পরে ওই মহিলাকে দিয়ে কাপড়গুলো বাড়িতে দিয়ে টাকা নিয়ে আসতে বলে কৌশলে অপহরণ করে তাকে এলেঙ্গা উত্তরপাড়া একটি বাসায় আটকে রাখা হয়। পরে উজ্জ্বল, মাসুদসহ পাঁচজন মিলে তার উপর পাশবিক অত্যাচার চালায়। প্লাস দিয়ে পুরুষাঙ্গ চেপে ধরে প্রাণে মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে ব্যবসায়ী আনোয়ারের কাছে থানা ১ লাখ ৭০ হাজার, বিকাশে থাকা ১১ হাজার ৮৭৭ টাকা (সেন্ড মানি), ৩০০ পিস থ্রি পিচ, একটি আই ফোন ও জেটিই সহ দু’টি ফোন ছিনিয়ে নিয়ে গভীর রাতে উজ্জ্বল সরকারের প্রাইভেটকারযোগে মহাসড়কের রাজাবাড়ী এলাকায় ফেলে দেয়। সেইসাথে বলে যায় এ বিষয়ে মামলা করলে খুন করে ফেলব। পরে কালিহাতী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে কালিহাতী থানায় অভিযোগ করলে পুলিশ ওই বাসায় অভিযান চালায়। পরে ঘটনার সাথে সম্পৃক্ততার সন্দেহে মাছুদ রানার বোন শিল্পী ও ভগ্নিপতি আফছারকে আটক করে পুলিশ। তিনি আরো জানান, তাকে কৌশলে অপহরণ করে একটি বাসায় আটকে রেখে উজ্জ্বল সরকার, মাছুদসহ ৫-৬ জন ব্যক্তি পাশবিক অত্যাচার করেছে। এরা কতটা ভয়ঙ্কর তা বলে বোঝাতে পারবোনা। আমি আইনগতভাবে এর সঠিক বিচার দাবী করছি।

কালিহাতী থানার ওসি তদন্ত শেখ মনিরুজ্জামান জানান, অপহরণ করে ছিনতাই ও নির্যাতনের ঘটনায় ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেন ফটিক থানায় পাঁচজনের নাম উল্লেখ করে অভিযোগ দায়ের করেন। ওই অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ ঘটনাস্থলে অভিযান চালিয়ে আফছার ও শিল্পী নামের দু’জনকে আটক করে মঙ্গলবার বিকেলে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল