• শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২৯ ১৪৩১

  • || ০৫ মুহররম ১৪৪৬

ভাতাপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ঋণ পেতে বয়সের সীমা নেই

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ২৫ জুন ২০২৪  

সরকারি ভাতাপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বিশেষ ঋণ কর্মসূচির আওতায় সোনালী ব্যাংকের সব শাখা ব্যবস্থাপক সর্বোচ্চ ২ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ মঞ্জুর করতে পারেন। 

এক্ষেত্রে ঋণ আবেদনের জন্য কোনো বয়সের সীমা নেই। যে কোনো বয়সের ভাতাপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা এই ঋণের জন্য আবেদন করতে পারেন।  তবে এ ধরনের ঋণের বিপরীতে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা লিয়েন করে রাখতে হবে। 

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সোনালী ব্যাংকের ঋণ কর্মসূচি নিয়ে বিভিন্ন গুজব ছড়িয়ে পরে। সেখানে বলা হয় ৬০ বছর বয়স হলে এই ঋণের জন্য তারা আবেদন করতে পারবেন না। অথচ বর্তমান সময়ে দেশে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রায় সবার বয়স এই বয়স সীমা পার হয়েছে। 

এ বিষয়ে সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আফজাল করিম ইত্তেফাককে বলেন, ২০১৫ সালে ভাতাপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের এই ঋণ গ্রহণে বয়সের সীমা নির্ধারণ করা হয়েছিল ৭০ বছর। পরবর্তীতে ২০১৬ সালের এপ্রিলে পরিচালনা পর্ষদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সরকারি ভাতাপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ঋণের ক্ষেত্রে বয়সসীমা তুলে দেওয়া হয়। তখন থেকেই এটি কার্যকর রয়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে যে বিষয়টি ছড়িয়েছে সেটি সঠিক নয়। 

তাছাড়া ২০১৬ সালের আগে এ ধরনের ঋণ প্রদানের জন্য সংশ্লিষ্ট প্রিন্সিপাল অফিস, করপোরেট শাখার ডিজিএম পর্যায়ের কর্মকর্তাগণ এই ঋণ মঞ্জুরি করতে পারতেন। কিন্তু ২০১৬ সাল থেকে সব শাখা ব্যবস্থাপক সর্বোচ্চ ২ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ মঞ্জুর করতে পারেন। তিনি আরও বলেন, ভাতা গ্রহীতা বীর মুক্তিযোদ্ধাদের উত্তরসূরিগণও ঋণ কর্মসূচির আওতায় ঋণ গ্রহণ করতে পারেন।

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল