• শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২৯ ১৪৩১

  • || ০৫ মুহররম ১৪৪৬

রৌমারীতে চিতাবাঘের বাচ্চা উদ্ধার

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ২২ জুন ২০২৪  

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে একটি চিতাবাঘের বাচ্চা উদ্ধার করা হয়েছে। বাচ্চাটি গত রবিবার (১৬ জুন) দিনগত রাতে কর্তিমারী আরএস ফ্যাশন এ ঢুকে পড়েছিল। 

বাচ্চাটির মা চিতাবাঘ এলাকায় থাকতে পারে বলে এলাকায় আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। ৬ দিন পরে বন বিভাগের কর্মকর্তারা বাঘের বাচ্চাটিকে উদ্ধার করে।
স্থানীয় আব্দুস সালাম মিয়া বলেন, পাশ্ববর্তী ভারত আসাম প্রদেশের মানকারচর পাহাড় থেকে বন্যার পানির ¯্রােতের কারনে চিতাবাঘের বাচ্চাটি বাংলাদেশ অভ্যন্তর রৌমারী উপজেলার যাদুরচর ইউনিয়নের কর্তিমারী বাজারে গভীর রাতে একটি দোকানে ঢুকে।  পরে দোকান মালিক উপজেলার রৌমারী সদর ইউনিয়নের চাক্তাবাড়ি গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে রাসেল ইসলাম এর বাড়িতে একটি খাচায় আটকে রাখা হয়।   
কর্তিমারী আরএস ফ্যাশন এর মালিক রাসেল ইসলাম জানান, রাত প্রায় আড়াইটার দিকে আমার দোকানে চিতাবাঘের বাচ্চাটি প্রবেশ করে। প্রথমে মনে করি সেটি বিড়াল। কিন্তু ভালো করে দেখি চিতা বাঘের বাচ্চা। পরে পাটের চট দিয়ে বাচ্চাটিকে ধরে খাচায় আটকিয়ে রাখি। বাচ্চাটি মানুষ দেখলে গর্জে উঠে এবং ভয় লাগে। বাচ্চাটিকে বিভিন্ন প্রকার মাংস খাওয়ানো হচ্ছে। আমি প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে খবর দিয়েছি।
রৌমারী বনবিভাগের কর্মকর্তা ইকবাল হোসেন (ভার:) বলেন, গ্রামে একটি চিতা বাঘের বাচ্চা ঢুকে পড়ার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই এবং চিতাবাঘের বাচ্চাটিকে উদ্ধার করি।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদ হাসান খান বলেন, বিষয়টি বনবিভাগের উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে এবং তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবে।
 

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল