• সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩১ ১৪৩১

  • || ০৭ মুহররম ১৪৪৬

জয়পুরহাটে একজনের যাবজ্জীবন, আরেকজনের ১০ বছরের জেল

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

জয়পুরহাটে পৃথক মাদক মামলায় আপেল প্রামাণিক ওরফে আপন নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে যাবজ্জীবন ও মাহফুজুর রহমান নামে আরেক আসামির ১০ বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি তাদের পৃথকভাবে ৫০ হাজার ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
সোমবার দুপুরে অতিরিক্ত দায়রা জজ-২ ও স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল-৫ আদালতের বিচারক আব্বাস উদ্দীন এ রায় দেন। রায় ঘোষণার সময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন না।

জয়পুরহাট আদালতের সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) উদয় সিংহ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত আপেল প্রামাণিক ওরফে আপন পাঁচবিবি উপজেলার রতনপুর গ্রামের নুরুল ইসলাম মন্টুর ছেলে ও ১০ বছর দণ্ডপ্রাপ্ত মাহফুজুর রহমান একই উপজেলার পশ্চিম কড়িয়া গ্রামের আমজাদ হোসেনের ছেলে। জামিন নেয়ার পর থেকে তারা দু’জনেই পলাতক রয়েছেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ২০১৭ সালের ৫ নভেম্বর রাতে বস্তার মধ্যে রাখা ১৩৯ বোতল ফেনসিডিলসহ আপেল প্রামাণিককে গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় একই দিনে পাঁচবিবি থানায় মামলা হয়। অবশেষে তার অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় আদালত তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডসহ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

অন্যদিকে, ২০২২ সালের ৬ মার্চ গোপন সংবাদ পেয়ে পাঁচবিবি উপজেলার কড়িয়া গ্রাম থেকে ৬৭ বোতল ফেনসিডিল ও ১১ বোতল ফারডিলসহ মাহফুজুর রহমানকে গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে মামলা হয়। তার অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় আদালত তাকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল