• সোমবার ০৪ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ২০ ১৪৩০

  • || ২২ শা'বান ১৪৪৫

আজকের টাঙ্গাইল

যোগাযোগের দুই মেগা প্রকল্পের কাজ এ বছর শেষ হবে

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ১৭ জানুয়ারি ২০২৪  

সড়ক যোগাযোগ অবকাঠামোর আরও দুটি মেগা প্রকল্প চলতি বছরের মধ্যে শেষ হবে। এর মধ্যে রাজধানীর বিমানবন্দর থেকে গাজীপুর পর্যন্ত বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট (বিআরটি)’র নির্মাণ কাজ শেষ হবে এ বছর জুনে। এছাড়া রাজধানীর কুতুবখালী পর্যন্ত ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের (উড়াল সড়ক) পুরো অংশের কাজ চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ হবে বলে জানিয়েছেন সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের নির্মাণকাজ এরই মধ্যে ৫০ শতাংশ সম্পন্ন হয়েছে। চলতি বছরের মধ্যেই ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের নির্মাণকাজ শেষ হবে। ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের বিমানবন্দর থেকে ফার্মগেট অংশে যান চলাচল করছে। চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুতুবখালী পর্যন্ত বাকি অংশের কাজ ২০২৪ সালের মধ্যেই সম্পন্ন করা হবে। পদ্মা সেতুতে দৈনিক ২ কোটি টাকা টোল আদায় হচ্ছে এবং এখন পর্যন্ত ১ হাজার ২৫২ কোটি টাকার টোল আদায় হয়েছে।’ এছাড়া চলতি বছরের জুনের মধ্যেই গাজীপুরে বিআরটিএ প্রকল্পের কাজও শেষ হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। মঙ্গলবার রাজধানীর বনানীর সেতু ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান সড়ক ও সেতু মন্ত্রী। এ সময় সেতু বিভাগের সচিব মো. মনজুর হোসেন উপস্থিত ছিলেন। এর আগে মন্ত্রী সেতু ভবনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন এবং বিভিন্ন প্রকল্পের অগ্রগতির খোঁজখবর নেন। বিআরটি-৩ প্রকল্পে ৯৬ শতাংশ কাজ শেষ ॥ চলতি বছরের জুনের দিকে চালু হচ্ছে গাজীপুর-বিমানবন্দর সড়কের বাস র‌্যাপিড ট্র্যানজিট (বিআরটি) প্রকল্পটি। এ পর্যন্ত পুরো প্রকল্পের ৯৬ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে। গাজীপুর শিববাড়ি থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত ২০ দশমিক ৫ কিলোমিটার দীর্ঘ বিআরটি (বাস চলাচলের পৃথক লেন) যুক্ত এই সড়কটি নির্মাণ করা হচ্ছে। পুরো লাইনে ২৫টি বিআরটি স্টেশন থাকবে এবং এ লাইনের মাধ্যমে প্রতিদিন প্রায় চার লাখ যাত্রী যাতায়াত করতে পারবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা বাস র‌্যাপিট ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড (ডিবিআরটিসিএল) ’র কর্মকর্তারা। এ বিষয়ে ডিবিআরটিসিএল’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম জনকণ্ঠকে বলেন, ‘প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি অনেক ভালো। চলতি বছরের জুনের দিকে পুরো প্রকল্পের কাজ শেষ হবে। এ পর্যন্ত পুরো প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি ৯৬ শতাংশ। ঢাকা বিআরটি’র মোট স্টেশন থাকবে ২৫টি। ইতোমধ্যে সবগুলো স্টেশনের কাজ চলছে। আশা করছি জুনের প্রকল্পের মূল কাজ শেষ হয়ে যাবে।’ ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে ॥ রাজধানীর উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের মধ্যে সংযোগ স্থাপনের জন্য ১৯ দশমিক ৭৩ কিলোমিটার দীর্ঘ সবচেয়ে বড় উড়াল সড়কের নাম ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে। যানজট নিরসনে রাজধানীর বিমান বন্দরের কাওলা থেকে যাত্রাবাড়ীর কুতুবখালী পর্যন্ত নির্মাণ করা হচ্ছে ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে। এর মধ্যে কাওলা থেকে ফার্মগেট পর্যন্ত সাড়ে ১১ কিলোমিটার অংশটি গত বছর ২ সেপ্টেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে পুরো অংশটি চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে চালু হবে বলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তরা জানান।

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল