• বুধবার ২৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ১১ ১৪৩১

  • || ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

লন্ডন হাইকমিশনে ভোটার রেজিস্ট্রেশন-স্মার্ট এনআইডি কার্ড বিতরণ

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ১১ জুন ২০২৪  

যুক্তরাজ্যে বসবাসকারী বাংলাদেশি নাগরিকদের জন্য ভোটার রেজিস্ট্রেশন ও স্মার্ট এনআইডি কার্ড বিতরণ কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে লন্ডনে বাংলাদেশ হাই কমিশন শুরু করেছে।
রোববার বিকেলে হাইকমিশনের বঙ্গবন্ধু লাউঞ্জে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বাংলাদেশের নির্বাচন কমিশনার মোঃ আলমগীর এই কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনিম। আজ ঢাকায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এখবর জানানো হয়।
উদ্বোধনী বক্তব্যে নির্বাচন কমিশনার বলেন,“ব্রিটিশ-বাংলাদেশিরাও এখন তাদের বাড়ি থেকেই ভোটার রেজিস্ট্রেশন ও স্মার্ট এনআইডি কার্ডের জন্য অনলাইনে নিবন্ধন করছেন। প্রয়োজনীয় সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার পর স্বল্পতম সময়ের মধ্যে স্মার্ট এনআইডি কার্ড বিতরণের কার্যক্রমও আজ থেকে এখানে শুরু হল।” রেজিস্ট্রেশনের ক্ষেত্রে কিছু জটিলতা ও দীর্ঘসূত্রিতার বিষয়ে অনুষ্ঠানে উপস্থিত প্রবাসিরা নির্বাচন কমিশনারের দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি বলেন,“রেজিস্ট্রেশনের প্রক্রিয়া কীভাবে আরো সহজ করা যায় সে ব্যাপারে নির্বাচন কমিশন আন্তরিক। এ বিষয়ে হাইকমিশনের মাধ্যমে লিখিত প্রস্তাব পাওয়া গেলে তা বিবেচনা করার জন্য সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে উপস্থাপন করা হবে।”
হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনিম স্বাগত বক্তব্যে বলেন, “প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশের ভিশন অনুসারে গত বছর ৩০ ডিসেম্বর জাতীয় প্রবাসি  দিবসে লন্ডন হাইকমিশন ভোটার রেজিস্ট্রেশন ও স্মার্ট এনআইডি কার্ড প্রদানের কার্যক্রম শুরু করে। এর আগে ২০২৩ সালের নভেম্বর মাসে পরীক্ষামূলকভাবে  লন্ডন ও ম্যানচেস্টার মিশনে ভোটার রেজিস্ট্রেশন ও স্মার্ট এনআইডি কার্ড-এর নিবন্ধন শুরু হয়। এ পর্যন্ত যুক্তরাজ্য থেকে ৪ হাজার ২৬৪টি আবেদন জমা হয়েছে। এর মধ্যে প্রায় ২ হাজার ৬০০ আবেদনকারী হাইকমিশনে অ্যাপয়েন্টমেন্ট করে বায়োমেট্রিক প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছেন। ইতোমধ্যেই এদের ৫২৮ জনের স্মার্ট এনআইডি কার্ড বিতরণের জন্য লন্ডন মিশনে পৌঁছেছে।  খুব শীঘ্রই তাঁদের কাছে কার্ড গ্রহণের বার্তা প্রেরণ করা হবে।”
তিনি যেসব আবেদনকারী এখনো বায়োমেট্রিক প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেননি তাঁদের অনলাইনে অ্যাপয়েন্টমেন্ট করে হাই কমিশনে এসে আঙুলের ছাপ, আইরিস ও ছবি দেয়ায় জন্য হাইকমিশনার পরামর্শ দেন।
অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক সুলতান মাহমুদ শরীফ, বীর মুক্তিযোদ্ধা লোকমান হোসেন, লন্ডন বা’রা অব ক্যামডেনের মেয়র সমতা  খাতুন এবং লন্ডন বা’রা অব বারকিং ও ডেগেনহ্যাম-এর মেয়র মঈন কাদরী।
অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট ব্রিটিশ-বাংলাদেশি সাংবাদিক সৈয়দ নাহাস পাশা, ব্রিটিশ-বাংলাদেশি কমিউনিটির জামাল হোসেন খান ও জাহাঙ্গির খানসহ কয়েকজন নির্বাচন কমিশনারের হাত থেকে তাঁদের স্মার্ট কার্ড গ্রহণ করেন।
তাঁরা যুক্তরাজ্যে ভোটার রেজিস্ট্রেশন ও স্মার্ট এনআইডি কার্ড প্রদান শুরু করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এজন্য তাঁরা হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনিম ও লন্ডন দূতাবাসের সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানান।
অনুষ্ঠানে বীর মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষাবিদ, সাংবাদিক, ব্রিটিশ-বাংলাদেশী সম্প্রদায়ের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও মিশনের কর্মকর্তা-কর্মচারিগণ উপস্থিত ছিলেন।
ভোটার রেজিস্ট্রেশন ও স্মার্ট এনআইডি কার্ড সম্পর্কিত সকল তথ্য ও নির্দেশনা লন্ডন হাই কমিশনের নিম্নের লিঙ্ক থেকে পাওয়া যাবেঃ https://bhclondon.org.uk/nid-

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল