• শনিবার ২২ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৮ ১৪৩১

  • || ১৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

সর্বশেষ:

‘কোটিপতিরা টাকা ফেরত দেয় না, কৃষক দেয়’

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ৩১ মে ২০২৪  

বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু বলেছেন, কৃষক চাষাবাদের জন্য টাকা পায় না। ফলে বাধ্য হয়ে উৎপাদিত ফসল কম দামে বিক্রি করে দেয়। এক তৃতীয়াংশ ফসল বিক্রি করে সেচ, সার ও শ্রমিকের খরচ দিতে হয়। কিন্তু কৃষকের টাকা দিলে সেই টাকা ফেরত পাওয়া সহজ। যদিও এ দেশে কোটিপতিরা টাকা ফেরত দেয় না। বৃহস্পতিবার ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই) আয়োজিত ‘স্মার্ট এগ্রিকালচার অ্যান্ড চ্যালেঞ্জেস ইন ভ্যালু চেন ডেভেলপমেন্ট’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, আমাদের দেশে কৃষিপণ্যের কোনো স্পেশালাইজড মার্কেট নেই। বিভিন্ন খুচরা ও পাইকারি বাজার আছে। কিন্তু পণ্যভিত্তিক আলাদা মার্কেট নেই। এমন মার্কেট যদি থাকত, কৃষক ফসল চাষের আগে অগ্রিম টাকা সংগ্রহ করতে পারত, তাহলে উৎপাদন বাড়ত। অনেক উদ্যোক্তা সেখানে আগাম বিনিয়োগ করত। বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী এ সময় আরও বলেন, কৃষি খাতে সবচেয়ে বড় সমস্যা স্ট্যান্ডারাইজেশন ও সার্টিফিকেশন। আগে চালেরও স্ট্যান্ডারাইজেশন ছিল না। গত তিন মাস আগে সেটা ঠিক করা হলো। তিন মন্ত্রণালয় মিলে কীভাবে চাল বিক্রি হবে- সেটা ঠিক করেছি। কোন ধরনের মানে, কোন নামে চাল বিক্রি হবে- সেটাও ঠিক করা হয়েছে। এখন একটি শৃঙ্খলা আসবে। আপনারা জানেন, মিনিকেট নামের কোনো চাল ছিল না। তারপরও সবচেয়ে বেশি এ নামে চাল বিক্রি হয়। এখন আর মনমতো মিলাররা চাল বিক্রি করতে পারবেন না। প্রতিটি পণ্যে এমখ স্ট্যান্ডার্ড ঠিক করতে হবে।

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল