• বুধবার ২৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ১১ ১৪৩১

  • || ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

আক্তারুজ্জামানকে আমেরিকা থেকে ফেরাতে ভারতের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ৩০ মে ২০২৪  

ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার হত্যাকান্ডের মদদদাতা মো. আক্তারুজ্জামান শাহিনকে আমেরিকা থেকে ফিরিয়ে আনতে ভারতের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবি) হারুন অর রশিদ। আনার হত্যাকা- নিয়ে তদন্ত শেষে কলকাতা থেকে একটি ফ্লাইটে বৃহস্পতিবার (৩০মে) বিকেল ৪টায় ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। হারুন অর রশীদ বলেন, আমেরিকার সাথে ভারতের বন্দিবিনিময় চুক্তি রয়েছে, এজন্যই ভারতের সহযোগিতা চেয়েছে বাংলাদেশ পুলিশ । এছাড়া খুনের মূল মদতদাতা শাহীনকে দেশে ফিরিয়ে আনতে বাংলাদেশ পুলিশেরও চেষ্টা চলছে । কিলিং মিশনে যারা অংশ নিয়েছে তাদের বর্তমান অবস্থান বা গতিবিধি জানেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে ডিবি প্রধান বলেন, এমপি আনার হত্যায় জড়িত সিয়াম কাঠমান্ডুতে অবস্থান করছে। এছাড়া খুনের মদদদাতা আক্তারুজ্জামান শাহিন আমেরিকায় অবস্থান করছেন। তাদের পাসপোর্টসহ বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ইন্টারপোলকে অবহিত করেছেন। তাদের ইন্টারপোলের মাধ্যমে দেশে ফিরিয়ে আনা হবে। ডিবি প্রধান বলেন, ‘কলকাতার নিউ টাউনের সঞ্জিভা গার্ডেনসের সেপটিক ট্যাংকে তল্লাশি চালিয়ে আনোয়ারুল আজীমের শরীরের কিছু অংশ পাওয়া গেছে। আলামত উদ্ধার, পারিপার্শ্বিক ডিজিটাল তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করায় আনার হত্যার তদন্ত অনেকটাই এগিয়েছে। ডিএনএ টেস্ট বা ফরেনসিক রিপোর্ট পেলেই তা নিশ্চিত হওয়া যাবে।’ তিনি বলেন, সংসদ সদস্য আনারকে হত্যার মোটিভ এখনই বলা সম্ভব নয়। তবে শাহীনকে দেশে ফিরিয়ে আনতে পারলে সবই জানা যাবে। তাকে দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে। সংসদ সদস্য আনার খুনের রহস্য উদঘাটনে ২৬ মে ডিবি প্রধান হারুন অর রশিদের নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি দল কলকাতায় যায়। পাঁচদিন পর তারা দেশে ফিরলেন। তদন্ত কমিটির অন্য দুই সদস্য হলেন- ওয়ারি বিভাগের ডিসি মুহাম্মদ আব্দুল আহাদ ও এডিসি শাহীদুর রহমান। গোয়েন্দা সূত্রে জানাগেছে, গত ১২ মে চিকিৎসার জন্য ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ থেকে চুয়াডাঙ্গার দর্শনার গেদে সীমান্ত দিয়ে ভারতে যান সংসদ সদস্য আনার। ওঠেন পশ্চিমবঙ্গে গোপাল বিশ্বাস নামে এক বন্ধুর বাড়িতে। পরদিন ডাক্তার দেখানোর কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন। এরপর থেকেই নিখোঁজ আনোয়ারুল আজিম। গত ১৮ মে বরাহনগর থানায় আনার নিখোঁজের বিষয়ে একটি জিডি করেন বন্ধু গোপাল বিশ্বাস। পরে জানাযায় কলকাতার নিউটাউন এলাকায় সঞ্জিভা গার্ডেনস নামে একটি আবাসিক ভবনে সংসদ সদস্য আনার খুন হয়েছেন।

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল