• বুধবার ২৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ১১ ১৪৩১

  • || ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

ঘুমের মধ্যেই হঠাৎ কেঁদে ওঠেন? কেন এমন হয়

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ২৮ অক্টোবর ২০২৩  

ঘুমন্ত অবস্থায় অনেকেই হুট করে কেঁদে ওঠেন। তবে ঘুম ভাঙার পরে কিছুই মনে করতে পারেন না! এই অবস্থায় মনে একটি গভীর প্রভাব পড়ে এবং শূন্যতার সৃষ্টি হয়। বেশিরভাগ সময়ে দুঃস্বপ্নের কারণেই এমন ঘটে।
কান্নার জন্য ঘুম ভেঙে যাওয়া বা কাঁদতে কাঁদতে জেগে যাওয়া স্বাভাবিক জীবনযাত্রাকে প্রভাবিত করতে পারে। ঘুমের মধ্যে কান্নাকাটি অমীমাংসিত ট্রমা, উদ্বেগ বা হতাশার ইঙ্গিত দিতে পারে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। সাইকোথেরাপিস্ট ডা. চাঁদনি টুগনাইট এ বিষয়ে কিছু মতামত দিয়েছেন-

অমীমাংসিত ট্রমা

যারা সম্প্রতি কোনো ট্রমা ভোগ করেছেন তারাও কাঁদতে কাঁদতে জেগে উঠেছেন। এই অশ্রুগুলি বিশেষজ্ঞ থেরাপিউটিক সহায়তার প্রয়োজনীয়তার নির্দেশ দেয়।

উদ্বেগ এবং হতাশা

দীর্ঘস্থায়ী উদ্বেগ বা অবিরাম বিষণ্নতা স্বপ্নের উপর প্রভাব ফেলে,  ঘুমানোর সময় মানসিক সমস্যা সৃষ্টি করে। এর কারণেও স্বপ্নের মধ্যে কান্না পেতে পারে।

নিদ্রাহীন রাত এবং অস্থির স্বপ্ন

কান্নাকাটি করে জেগে ওঠার কারণ হল দুঃস্বপ্ন। মানসিক উদ্বেগ, দুশ্চিন্তা ও ভয়ের কারণে মানুষ বেশিরভাগ দুঃস্বপ্ন দেখে। তাই দুঃস্বপ্নকে এড়িয়ে যাওয়া একেবারেই উচিত নয়।

আবেগ দমন

অনেকেই রয়েছেন যারা নিজেদের আবেগ অনুভূতি দমন করে রাখে। এতে ঘুমের মধ্যে গভীর প্রভাব পড়ে। তাই যারা ভীষণ ভাবে আবেগ দমন করেন তারাই ঘুমের মধ্যে কান্নাকাটি করেন।

ক্ষতি ও দুঃখ

প্রিয়জনকে হারানোর কারণে হঠাৎই ঘুমের মধ্যে কান্না হতো পারে। শোক একটি তীব্র মানসিক সমস্যা হিসেবে দাঁড়ায়।

স্ট্রেস

মানসিক চাপের কারণেও ঘুমের মধ্যে কান্নাকাটি করেন অনেকে। তাই হঠাৎ কাঁদতে কাঁদতে ঘুম ভেঙে যাওয়ার একটা কারণ স্ট্রেসও হতে পারে।

ওষুধ এবং ড্রাগ ব্যবহার

অতিরিক্ত ওষুধ খেলেও এই সমস্যা দেখা দেয়। তাই খুব প্রয়োজন না থাকলে অতিরিক্ত ওষুধ খাওয়া এড়িয়ে চলাই ভালো।

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল