• শনিবার ২২ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৮ ১৪৩১

  • || ১৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

সর্বশেষ:
রাসেল ভাইপার নিয়ে আতঙ্ক নয়, বাড়াতে হবে সাবধানতা ও সচেতনতা বান্দরবানে কেএনএফের ৩ সদস্য গ্রেফতার: জেল হাজতে প্রেরণ নয়াদিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে প্রধানমন্ত্রীকে আনুষ্ঠানিক সংবর্ধনা মহাত্মা গান্ধীর প্রতি শ্রদ্ধা প্রধানমন্ত্রীর কাহারঘোনা সংস্কার পরিষদের কৃতিশিক্ষার্থী ও গুণিজন সংবর্ধনা বকশীগঞ্জে অটোভ্যানের চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে নারীর মৃত্যু! রাসেল’স ভাইপার নিয়ে জনগণকে আতংকিত না হওয়ার আহ্বান ঢাকা-দিল্লি সম্পর্ক আরও গভীর করতে ৭টি নতুন সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর বকশীগঞ্জে বন্যার পানিতে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত, শুরু হয়েছে নদী ভাঙন! আ.লীগের পঁচাত্তর বছর উন্নয়ন-অর্জনে পরিপূর্ণ

দেশের স্টার্টআপগুলোতে ৮০০ মিলিয়নের ওপর বিনিয়োগ এসেছে: পলক

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ২৯ মার্চ ২০২৩  

ভারত ও সিঙ্গাপুর থেকে বাংলাদেশের স্টার্টআপগুলোতে ৮০০ মিলিয়নের ওপর বিনিয়োগ এসেছে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। তিনি বলেন, স্টার্টআপ ধীরে ধীরে ওঠে না, রকেটের গতিতে উঠে। বিকাশ, নগদ ও শপআপ এরই মধ্যে বিলিয়ন ডলারের কোম্পানি হয়েছে।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) মিলনায়তনে দেশের উদ্যোক্তা ও স্টার্টআপদের জন্য সর্ববৃহৎ আয়োজন বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্টের (বিগ) তৃতীয় পর্বের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান। 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের তরুণদের মেধার ঘাটতি নেই, তাদের প্রয়োজন সহযোগিতা। বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্টের মাধ্যমে আমরা সেই সুযোগ করে দিচ্ছি। তরুণ উদ্ভাবকেরা শুধু দেশের নয়, বিশ্বের সমস্যা সমাধান করবে।

এসময় দেশের সমস্যাগুলোর প্রযুক্তিনির্ভর সমাধান দিয়ে অর্থনৈতিক সংকট মোকাবিলায় তরুণ উদ্ভাবকদের প্রতি আহ্বান জানান পলক। 

তিনি বলেন, উদ্যোক্তাদের সহযোগিতার জন্য আমরা ইনোভেশন অ্যান্ড অন্ডার প্রেনিউরশিপ একাডেমি প্রকল্প চালু ও স্টার্টআপ বাংলাদেশ লিমিটেড প্রতিষ্ঠা করেছি। এ প্রতিষ্ঠানগুলোর মাধ্যমে দেশে স্টার্টআপ ইকোসিস্টেম গড়ে উঠবে। পাশাপাশি আগামীতে বাংলাদেশ বিনিয়োগকারীদের আকর্ষণীয় হাব এ পরিণত হবে।

জানা যায়, বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট ২০২৩ এর পুরস্কার হিসেবে সেরা একটি স্টার্টআপকে দেওয়া হবে বিশেষ সম্মাননা ও গ্র্যান্ট হিসেবে ১ কোটি টাকা অনুদান। বাকি নির্বাচিত তালিকার সেরা ৫০ স্টার্টআপের প্রত্যেককে দেওয়া হবে ১০ লাখ টাকা করে অনুদান। এছাড়া স্টার্টআপদের জন্য রয়েছে বিনিয়োগ পাওয়ার সুবিধাসহ নানা সুযোগ। অর্থাৎ সেরা ৫১টি স্টার্টআপকে মোট ৬ কোটি টাকা অনুদান হিসেবে দেওয়া হবে। শুধু তাই নয়, বিগ ২০২৩ এর সেরা ৫১টি স্টার্টআপকেই দেওয়া হবে বিশেষ সম্মাননা সনদ।

অনুষ্ঠানে আইডিয়া প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. আলতাফ হোসেনের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব মো. সামসুল আরেফিন, বিসিসির নির্বাহী পরিচালক রণজিৎ কুমার এবং স্টার্টআপ বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সামি আহমেদ। 

‘বিগ’ সর্বপ্রথম ২০১৯ সালে স্টার্টআপদের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পাওয়ার পর ২০২১ সালে সফলভাবে দ্বিতীয়বারের মতো অনুষ্ঠিত হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ২০২৩ সালে ওই জনপ্রিয় আয়োজনটি তৃতীয়বারের মতো আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এবারের আয়োজনের প্রতিপাদ্য বিষয় হল, ‘ডেয়ার টু স্টান্ড বিগ’।

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল