• বুধবার ২৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ১১ ১৪৩১

  • || ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

ইউপি চেয়ারম্যানকে কুপিয়ে হত্যা, ৩৬ জনের নামে মামলা

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ৩০ মে ২০২৪  

নরসিংদীর মেহেরপাড়া ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান মাহাবুবুল হাসান হত্যার ঘটনায় ইউপি সদস্যসহ ৩৬ জনের নামে মামলা হয়েছে। নিহত মাহাবুবুল হাসানের ছোট ভাই হাফিজুল হাসানের দেওয়া এজারহারটি বৃহস্পতিবার মাধবদী থানায় নথিভুক্ত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মাধবদী থানার ওসি মুহাম্মদ কামরুজ্জামান। তিনি বলেন, দুর্বৃত্তদের হামলায় নিহত মাহাবুবুল হাসান হত্যার ঘটনায় ৬ জন আটক রয়েছেন। তাদের মামলার বরাদ দিয়ে গ্রেফতার দেখানো হবে। এছাড়া মামলার প্রধান আসামি ইউপি সদস্য আতাউর রহমানসহ অন্যান্য আসামিদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশ অভিযান অব্যাহত আছে। তবে তদন্তের স্বার্থে মামলায় দেওয়া প্রধান আসামি ছাড়া কারো নাম উল্লেখ করেননি তিনি। এর আগে মঙ্গলবার রাত পৌনে ১২টার দিকে মাধবদী থানার মেহেরপাড়া ইউপির ভগিরথপুর এলাকায় দুর্বৃত্তরা নৃশংসভাবে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করে মাহবুবুল হাসান মাহাবুবকে। এ সময় তার সঙ্গে থাকা আরো দুজন আহত হয়েছেন। নিহত মাহবুবুল হাসান ভগিরথপুর গ্রামের হাজী ইমাম উদ্দিনের ছেলে ও আওয়ামী লীগ নেতা। হত্যার ঘটনায় প্রত্যক্ষদর্শী ও নিহতের স্বজনরা জানান, প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার রাতে ভগিরথপুর মাজার বাসস্ট্যান্ড এলাকার চেয়ারম্যান মার্কেটে অবস্থিত ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কার্যালয় থেকে ৮ থেকে ১০ জন দলীয় নেতা-কর্মীকে নিয়ে বাসায় ফিরছিলেন মাহবুবুল হাসান। পথে ৭ থেকে ৮ জন অস্ত্রধারী দুর্বৃত্ত তাদের ওপর হামলা করে। এ সময় গুলি ও ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মাহবুবুল হাসান, ভগিরথপুর গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে শ্রমিক লীগ নেতা সাঈদ হাসান পাপ্পু ও ফরহাদ মিয়া আহত হন। স্থানীয়রা আহতদের নরসিংদী সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মাহবুবুল হাসানকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে ময়নাতদন্ত শেষে নিজ এলাকা মেহেরপাড়া ইউপির ভগিরথপুর গ্রামে সামাজিক কবরস্থানে মাহাবুবুল হাসানের লাশ দাফন করা হয়েছে।

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল