• শনিবার   ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ১০ ১৪২৮

  • || ১৮ সফর ১৪৪৩

আজকের টাঙ্গাইল
সর্বশেষ:
উল্লাপাড়ায় প্রবাসীর স্ত্রী ধর্ষণের অভিযোগে গৃহশিক্ষক গ্রেফতার কাজিপুরে মাইক্রোবাস মালিক সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত নাটোরের সিংড়ায় বন্যার্তদের মাঝে হুয়াওয়ের ত্রাণসামগ্রী বিতরণ বকশীগঞ্জে বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পেলো ৮ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাষণ বিজ্ঞান অলিম্পিয়াডে অনন্য শিমুলদাইড় উচ্চ বিদ্যালয় সখীপুরে বিআরডিবি নির্বাচন- চেয়ারম্যান রুহুল ভাইস চেয়ারম্যান শাফলু আজ ইসলামপুর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন ভূঞাপুরে যমুনা নদীতে শুরু হয়েছে দুই দিনব্যাপী নৌকা বাইচ প্রতিযোগি জিয়াউর রহমান ছিলেন পাকিস্তানের এজেন্ট : মির্জা আজম

সারারাত ইবাদত করার সওয়াব মেলে যে আমল করলে

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ৪ সেপ্টেম্বর ২০২১  

সারাদিন পরিশ্রম করার কারণে অনেকেই রাত জেগে আল্লাহর ইবাদত করতে পারেন না। তারা এমন কিছু আমল করতে পারেন- যেগুলো করলে সারারাত না জেগেও রাত জেগে আমল করার পূর্ণ সওয়াব পাওয়া যাবে।

এশা, তারাবি ও ফজরের নামাজ জামাতে আদায় করা: নবীজি (সা.) বলেন, যে ব্যক্তি ইমামের সঙ্গে রাতে এশা ও তারাবি নামাজ পড়ে এবং ইমাম নামাজ শেষ করে চলে যাওয়া পর্যন্ত তিনি অপেক্ষা করেন। আল্লাহ তায়ালা ওই ব্যক্তিকেও সারারাত দাঁড়িয়ে ইবাদত করার সমান সাওয়াব দান করেন।’ (আবু দাউদ)

ইমামের সঙ্গে জামাতে এশা এবং তারাবি নামাজ শেষ পর্যন্ত থেকে আদায় করলে আল্লাহ তায়ালা ওই ব্যক্তিকে সারারাত জেগে ইবাদত করার সওয়াব দান করবেন।

অন্য এক হাদিসে রয়েছে- প্রিয় নবী (সা.) বলেন, যে লোক এশার নামাজ জামাতের সঙ্গে আদায় করল, সে ব্যক্তিকে আল্লাহ তায়ালা সারারাত দাঁড়িয়ে ইবাদত-বন্দেগি করার সাওয়াব দান করবেন। আর যে লোক এশা এবং ফজর উভয় নামাজ জামাতের সঙ্গে আদায় করবে, আল্লাহ তায়ালা তাকে সারারাত দাঁড়িয়ে ইবাদত করার সাওয়াব দান করবেন।’ (মুসলিম)

অর্থাৎ এমন একটি সহজ আমল রয়েছে, যার মাধ্যমে মুমিন বান্দা সারারাত ঘুমিয়েও পূর্ণরাত ইবাদত বন্দেগি করার সওয়াব লাভ করবে। আর তা হলো এশা এবং ফজর নামাজ জামাতের সঙ্গে আদায় করা।

রাত জেগে ইবাদত করার নিয়ত করে ঘুমাতে যাওয়া: যে ব্যক্তি এ নিয়তে বিছানায় ঘুমোতে যায় যে, সে রাতে জেগে উঠে ইবাদত-বন্দেগি করবেন। কিন্তু বিছানায় ঘুমানোর পর, তার ঘুম এত ভারি ও প্রবল ছিল যে সে আর জেগে ইবাদত করতে পারেনি। ঘুমেই তার রাত অতিবাহিত হয়ে গেছে। সে ব্যক্তিও রাতে জেগে ওঠে ইবাদত-বন্দেগির নিয়তের কারণে সারারাত জেগে ইবাদত করার সাওয়াব পাবেন। আর এ ব্যক্তির জন্য রাতের ঘুমটি হবে আল্লাহর পক্ষ থেকে সদকাহ বা উপহার।

১০০ আয়াত তেলাওয়াত করা: নবীজি (সা.) বলেন, যে ব্যক্তি রাতে ১০০টি আয়াত তেলাওয়াত করবে, আল্লাহ তায়ালা তাকে সারারাত ইবাদতের সমান সওয়াব দান করবেন। (সহিহুল জামে)।  

কোরআনুল কারিমের যে কোনো সুরা বা স্থান থেকে ১০০টি আয়াত তেলাওয়াত করলেই সাররাত জেগে আমল করার সওয়াব পাওয়া যাবে।

মহান রাব্বুল আলামিন আমাদের সবাইকে সবসময় ইবাদত বন্দেগি করার তাওফিক দান করুন। আমিন।    

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল