• শনিবার   ২৭ নভেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৩ ১৪২৮

  • || ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

আজকের টাঙ্গাইল

অসময়ে ভাঙছে যমুনা- কাজিপুরে তীর সংরক্ষণ কাজের ৩০ মিটার ধসে গেছে

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ১৪ অক্টোবর ২০২১  

সিরাজগঞ্জের কাজিপুর পয়েন্টে এবারের বন্যার ঝুঁকি কেটে গেছে প্রায় একমাস প‚র্বে। যমুনায় এখন কোথাও কোথাও নৌকায়ই আটকে যায়। 

কোথাও পলি পড়ে সমতল ভ‚মির সৃষ্টি হয়েছে। এই অবস্থায়ও পানির তোড়ে ধসে গেছে নদীতীর সংরক্ষণ কাজের ৩০ মিটার। বৃহস্পতিবার সকাল দশটা থেকে দুপুর পর্যন্ত সময়ে কাজিপুরের বিলচতল ঢেকুরিয়া সংরক্ষণ কাজের জিরো পয়েন্টে এই ভাঙন দেখা দেয়।

 এর আগে গত ২৭ সেপ্টেম্বর জিরো পয়েন্টের একশ মিটার উত্তরে বগুড়ার ধুনট অংশে ধস নামে। এতে করে ওই অংশের প্রায় চলি­শ মিটার অংশ এখনো অরক্ষিত অবস্থায় রয়েছে। তারেই পাশে আজ কাজিপুর অংশে দেখা দিয়েছে ধস। এতে করে ভাঙনের ঝুঁকিতে পড়েছে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধসহ জনবসতি এলাকা। খবর পেয়ে বেলা সাড়ে বারটা থেকে পাউবে’র তত্বাবধানে ধসে যাওয়া স্থানে জিওব্যাগ ফেলার কাজ চলছে। 

স্থানীয় স‚ত্রে জানা গেছে, ডান তীর সংরক্ষণ প্রকল্পের আওতায় ২০১১-১২ অর্থ বছর থেকে কাজ শুরু হয়। শেষ হয়েছে ২০১৪-১৫ অর্থ বছরে। নদীর তীর স্লোপ করে তার ওপর জিও চট বিছিয়ে সিসি ব্লক প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে এই কাজ শেষ করে। প্রায় একমাস যাবৎ নদীর পানি কমতে কমতে অনেক স্থানে নাব্যতা সংকট দেখা দিয়েছে। অথচ এই অবস্থায়ও জিরোপয়েন্ট অংশে প্রবল স্রোত ঘুর্ণাবর্তের সৃষ্টি হয়ে তীর আঘাত হানায় প্রকল্প এলাকায় ভাঙন শুরু হয়। 

স্থানীয়রা জানান, যমুনার যত্রতত্র থেকে বালি উত্তোলন, নদীর তীর সংরক্ষণ এলাকা দিয়ে বালি পরিবহন, নৌকা বোঝাই দেয়ার কাজ, প্রকল্পের পাশ দিয়ে বালিবাহী ভারী যান চলাচল করায় পুরো প্রকল্প এলাকার নানাস্থানেই বিভিন্ন সময়ে ধস নামে। এমনি করে সিসি ব্লকে বাঁধানো তীর রক্ষা বাঁধ দফায় দফায় ভেঙে নদীগর্ভে বিলীন হচ্ছে। পুরো অংশ সিসি ব্লকের স্থানে স্থানে ফাঁকা হয়ে যাওয়ায় ভাঙন হুমকিতে পড়েছে পুরো বাঁধ এলাকা। অনেকাংশে বাঁধের ব্লক নদীতে চলে গেছে এবং বড় বড় ফাটল তৈরি হয়েছে। ভাঙনে ঘরবাড়ি হারানোর ভয়ে আছেন তারা। ভাঙন রোধে যেভাবে কাজ হওয়া প্রয়োজন সেটিও হচ্ছে না বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) উপ-সহকারী প্রকৌশলী হায়দার আলী বলেন, পানি কমে যাওয়ার কারণে নদী ভাঙন দেখা দিয়েছে। ধস ঠেকাতে বালু ভর্তি জিও ব্যাগ ফেলা হয়েছে।

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল