• শনিবার   ২৭ নভেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৩ ১৪২৮

  • || ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

আজকের টাঙ্গাইল

বাসাইলে গুড়িয়ে দেওয়া হলো অবৈধ ড্রেজার

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ৩ নভেম্বর ২০২১  

 টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার বিভিন্ন নদী, খাল ও বিলে দীর্ঘদিন ধরে অবৈধ ড্রেজার বসিয়ে বালু ব্যবসা করে আসছিলেন কতিপয় অসাধু ব্যবসায়ীরা। এতে ক্ষতিগ্রস্ত ভুক্তভোগিদের অভিযোগের ভিত্তিতে উপজেলা প্রশাসন ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে অভিযান চালিয়ে ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে বেশ কয়েকটি ড্রেজার মেশিন।
 
মঙ্গলবার (২নভেম্বর) দিনব্যাপী উপজেলা ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাহিয়ান নুরেন উপজেলার বাসাইল সদর ইউনিয়নের মিরিকপুর ও কাউলজানী ইউনিয়নে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে এসব অবৈধ ড্রেজার মেশিন গুড়িয়ে দেন।

জানা গেছে বিভিন্ন সামাজিক গণমাধ্যম ও সংবাদ মাধ্যমে বাসাইলে ড্রেজার বসিয়ে বালু বিক্রি সংক্রান্ত রিপোর্ট প্রকাশ হয়। এ ছাড়াও স্থানীয় ভুক্তভোগিদের মৌখিক ও লিখিত অভিযোগে ভিত্তিতে উপজেলা ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাহিয়ান নুরেন ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন।
 
এ সময় বাসাইল সদর ও কাউলজানী ইউনিয়নের বিল থেকে ৫টি ড্রেজার মেশিন ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ভেঙ্গে দেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, বাসাইল থানা পুলিশের একটি টীম এবং এলাকাবাসী।
 
উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাহিয়ান নুরেন বলেন,আজকে অভিযান চালিয়ে ড্রেজারের পাইপ ভেঙে গুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। ভ্রাম্যমান আদালতের উপস্থিতি টের পেয়ে বালু ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।
 
উল্লেখ্য, উপজেলার ঝিনাই, বংসাই, লাঙ্গুলিয়াসহ বিভিন্ন বিলে ড্রেজার বসিয়ে দীর্ঘদিন ধরে মাটি কাটে যাচ্ছে প্রভাবশালীরা। তারা এলাকাসীর নিষেধ ও আইনের তোয়াক্কা না করে অবৈধভাবে ড্রেজার বসিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বালু ও মাটি বিক্রি করে হাতিয়ে নিচ্ছে লক্ষ লক্ষ টাকা। আইনের তোয়াক্কা না করে বালু উত্তোলন করায় দু’পাশের বাড়িঘরসহ সাধারন মানুষের কৃষি জমির ব্যাপক ক্ষতি সাধন হচ্ছে। হুমকির মুখে রয়েছে উপজেলার বিভিন্ন পয়েন্টে হাজার হাজার একর আবাদী জমি। নিজেদের জমির ক্ষতি হচ্ছে দেখেও প্রভাবশালীদের ভয়ে মুখ খুলতে পারছেনা অসহায় কৃষকরা। মুখ খুলে কোথাও কথা বললেই হুমকি আসছে বলেও জানান স্থানীয়রা।

দীর্ঘদিন থেকে অবৈধ ভাবে বালু বিক্রির মহোৎসব চললেও অজ্ঞাত কারনে নিরব ভুমিকায় ছিলেন স্থানীয় প্রশাসন। অবশেষে প্রশাসন ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে ৫টি ড্রেজার মেশিন গুড়িয়ে দেয়।

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল