• শনিবার   ০২ জুলাই ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১৮ ১৪২৯

  • || ০২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

আজকের টাঙ্গাইল

যে কারনে লবণে আয়োডিন মেশানো জরুরি?

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ৩১ মে ২০২২  

রান্নাঘরে খাবারের স্বাদ বাড়াতে লবণের জুড়ি নেই। তাইতো লবণ ছাড়া রান্না করার কথা চিন্তা করাই কঠিন। খেয়াল করলেই দেখবেন, বাজার থেকে আমরা সবসময় আয়োডিন যুক্ত লবণই কিনে আনি। নিজের ও পরিবারের সুস্থতার কথা বিবেচনা করেই আমরা আয়োডিন যুক্ত লবণ খেয়ে থাকি।

কিন্তু লবণে আয়োডিন মেশানো কতটা জরুরি তা জানেন কি? চলুন জেনে নেয়া যাক লবণে আয়োডিন মেশানোর প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে- 

আমাদের শরীরের জন্য আয়োডিন কতটা জরুরি?

থাইরয়েড গ্রন্থির স্বাস্থ্য রক্ষায় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ আয়োডিন। আয়োডিনের অভাবে গলগণ্ড বা গয়টার রোগ হয়ে থাকে। অন্তঃসত্ত্বা নারীর শরীরে আয়োডিনের ঘাটতির ফলে অনিচ্ছাকৃত গর্ভপাত কিংবা বিকলাঙ্গ সন্তান প্রসবের মতো ঘটনা ঘটতে পারে। তাছাড়া শিশুর মস্তিষ্ক ও দেহের বিকাশেও এই মৌল অত্যন্ত জরুরি। আয়োডিনের অভাবে স্নায়বিক দুর্বলতা, বধিরতা, বাকশক্তিহীনতা, মানসিক প্রতিবন্ধকতা, বামনত্বের মতো নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে। পাশাপাশি আয়োডিনের অভাব থাকলে শিশুর মস্তিষ্ক গঠন ও মানসিক বিকাশও ব্যাহত হয়। পূর্ণবয়স্কদের ক্ষেত্রে মাথার চুল কমে যাওয়া, মনোযোগের অভাব, স্মরণশক্তি হ্রাস পাওয়া ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাওয়ার মতো ঘটনাও ঘটতে পারে।

এই সব কারণের কথা মাথায় রেখেই ১৯৬২ সালে ভারতে খাদ্যলবণে আয়োডিন মেশানোর সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। যা গোটা বিশ্বে এক নজির। উদ্যোগটির নাম দেওয়া হয়, ‘ইউনিভার্সাল সল্ট আয়োডাইজেশন’। বর্তমানে প্রায় ৯০ শতাংশ বাড়িতেই এই আয়োডিন সমৃদ্ধ লবণ খাওয়া হয়।

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল