• বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৯

  • || ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

আজকের টাঙ্গাইল
সর্বশেষ:

আয়াতুল কুরসি পড়েই আমি প্যারালাইসিস থেকে মুক্তি পেয়েছি -গাঙ্গুয়া

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ২৮ জুন ২০২২  

আয়াতুল কুরসি পড়তে পড়তেই আমি প্যারালাইসিস থেকে মুক্তি পেয়েছি বলে মন্তব্য করেন খলঅভিনেতা মোহাম্মদ পারভেজ চৌধুরী গাঙ্গুয়া । 

২৮ জুন সকালে এফডিসির কালার ল্যাবের সামনে সাংবাদিকদের আরো বলেন, আমি ব্রেণ স্ট্রোক করেছিলাম ৫/৭ বছর। আমি অসুস্থ ছিলাম। ২ বছর বিছানায় পড়ে ছিলাম।  একটু কাত হওয়া না যায় না, সোজা হওয়া যায় না।তারপরও আবার কথাও বলতে পারতাম না।মুখটাও ব্যাকা ছিলো। ডান পাশের সমস্ত কিছুই অবশ হয়েছিল। এক গ্লাস পানিও ধর‍তে পারতাম না।খাওয়া দাওয়া সকল কিছুই বিছানার মধ্যেই হতো।  খুব মনে হতো এ জীবনডা না রাখায় ভাল ছিলো। অনেক চিন্তা করতাম। কি করব। মাঝে মাঝে মনে চাইত যদি বাসার ছাদে ৮ তলায় উঠতে পারতাম তাহলে আত্মহত্যা করতাম। আল্লাহর কাছে অনেক ক্ষমা চাইতাম। তারপর সিদ্ধান্ত নিলাম নামাজ পড়ব। কিন্তু নামাজ পড়ব কিভাবে বসতেও পারি না। একটু যদি যদি বসতে পারতাম তাহলে নামাজটা পড়তে পারতাম। তারপরও মনের মধ্যে আমি নিজে জল্পনা কল্পনা শুরু করে দিলাম। আমি আয়াতুল কুরসি সুরাটা পড়া শুরু করলাম। মনে করলাম এটাই আমার সঙ্গের সাথী। জীবনে কি ভুল করেছি, কোথায় ভুল করেছি এগুলো নিয়ে অনেক মাফ চাইতাম। আয়াতুল কুরসি পড়ার পর আমি এখন সুস্থ রয়েছি। চলচ্চিত্রেও কাজ করছি। 
আয়াতুল কুরসি পড়ার সিদ্ধান্তটা কিভাবে নিলেন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি যদি কথা বলতে চাই তাহলে আমার মুখটাকে চালু রাখতে হবে।আর তা করতে আমাকে বাংলা পত্রিকা,ম্যাগাজিন পড়তে হবে। নিজে নিজে পড়তাম। হঠাৎ মনে হলো আমি তো আরবী লেখার বাংলা উচ্চারণে কুরআন শরীফ বা আয়াতুল কুরসি পড়ি। পরে এক লাইন দু লাইন করে পড়তাম আয়াতুল কুরসি। প্রতিদিন এভাবে পড়তাম। অনেক দিন পড়ে পড়ে আমি মুখস্থ করেছি। প্রতি নিয়ত পড়তাম। অসুস্থ যখন ছিলাম সে সময় রাত দিন আমার কাছে সমান ছিলো 

চলার পথে কী কী ভুল হতে পারে প্রশ্নের জবাবে তিনি এ প্রতিবেদক মাসুদুর রহমানকে বলেন, আমার আব্বা বলে গিয়েছিলেন যখনি তোমার কাছে হজ্জ করার মতো টাকা আসবে তখনি সবার আগে তুমি কিন্তু হজ্জটা করে নিবা। কারণ ফরজ কাজটা এটা যদি তুমি করে নাও তাহলে কোন অভাব আসবে না। কিন্তু আমি এটা করিনি। ওই সময়ে কাজ কর্ম করি, ব্যবসা করি, ইইন্ডাস্ট্রিতে ডুকে যাই।নানা ভাবে পয়সা নষ্ট করি। খেয়াল আসে নাই যে, আমি আব্বার কথাটা রাখব। তারপর আমি ব্রেনস্টক করি। 

তার ভক্তদের উদ্দেশ্যে তিনি আরো বলেন, ভক্তদের উদ্দেশে গাঙ্গুয়া বলেন, আল্লাহ ও  রাসূল সা: এর ওপর সবাই ভরসা রাখুন।যতই বিপদ আসুক না কেনো আল্লাহ অবশ্যই উদ্ধার করবে। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন।


 

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল