• বুধবার   ১২ মে ২০২১ ||

  • বৈশাখ ২৯ ১৪২৮

  • || ৩০ রমজান ১৪৪২

আজকের টাঙ্গাইল
সর্বশেষ:
ধুনটে নমুনা শস্য কর্তনের উদ্বোধন বকশীগঞ্জের নিলাক্ষিয়ায় অবৈধ বালু উত্তোলনের ড্রেজার মেশিন ধ্বংস প্রধানমন্ত্রীর উপহার কর্মহীনদের মাঝে তুলে দিলেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী সখীপুরে এমপি’র উন্নোয়নমূলক কাজের প্রশংসা করে গেইট ও বিলবোর্ড বকশীগঞ্জে ৪৪ জন মহিলার মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ সখীপুরে আর্ত-সন্ধ্যাণ ব্লাড ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ বকশীগঞ্জ মাস জুড়ে ইফতার বিতরণ করছে থানা পুলিশ দেওয়ানগঞ্জে দরিদ্র পরিবারদের মাঝে ঈদবস্ত্র ও নগদ অর্থ বিতরণ ঘাটাইল উপজেলা ও পৌর বিএনপির নেতৃবৃন্দকে জেলার সতর্কবার্তা গরীবের সাহায্য আত্মসাৎকারী ভিক্ষুকের চেয়ে খারাপ : মির্জা আজম

২০৩০ সালের মধ্যে সিক্সজি প্রযুক্তি আনবে হুয়াওয়ে

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ২১ এপ্রিল ২০২১  

শীর্ষস্থানীয় আইসিটি পণ্য, প্রযুক্তি ও সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে ২০৩০ সালের মধ্যে সিক্সজি নেটওয়ার্ক চালু করতে যাচ্ছে বলে সম্প্রতি জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির রোটেটিং চেয়ারম্যান এরিক শু। দক্ষিণ চীনের গুয়াংডং প্রদেশের শেনজেনে অনুষ্ঠিত হুয়াওয়ে গ্লোবাল অ্যানালিস্ট সামিটে শু এই ঘোষণা দেন। 

 

অনুষ্ঠানে হুয়াওয়ে শিল্পখাতে সিক্সজি উন্মোচনের প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে। আর এজন্য সিক্সজি নিয়ে একটি বিশেষ শ্বেতপত্র (হোয়াইট পেপার) প্রকাশিত হতে যাচ্ছে। 

 

এ শ্বেতপত্র প্রযুক্তিখাতে নিয়ন্ত্রক ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের ও প্রতিষ্ঠানদের এ প্রযুক্তি সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে সহায়তা করবে। শীঘ্রই শ্বেতপত্রটি উন্মোচন করা হবে। 

 

হুয়াওয়ে বর্তমানে সিক্সজি সম্পর্কিত দু’টি বিষয় নিয়ে কাজ করছে। শু বলেন, ‘প্রথমত, সিক্সজি আসলে কী তা নিরূপণে আমরা শিল্পখাত সংশ্লিষ্টদের সাথে কাজ করছি। সিক্সজি কেমন হবে সে ব্যাপারে আমরা ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান এবং গ্রাহকদের সাথে আলোচনা করতে চাই। দ্বিতীয়ত, আমাদের লক্ষ্য এবং সিক্সজি’র সম্ভাব্য সংজ্ঞা অনুসারে, আমরা মৌলিক বিজ্ঞান এবং সর্বাধুনিক প্রযুক্তি নিয়ে গবেষণা করছি, যাতে আমরা একসাথে সিক্সজির বিষয়ে যে কাজ করছি তার গুরুত্ব অনুধাবন করতে পারি।’ 

 

শু বলেন যে, হুয়াওয়ে ২০ বছরের অধিক সময় ধরে এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলে কাজ করছে এবং এই অঞ্চলের বিভিন্ন শিল্পখাতের ডিজিটাল রূপান্তরে সহায়তাদানের যথাসাধ্য চেষ্টা করে যাচ্ছে। 

 

তিনি বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি, এটি হুয়াওয়ের জন্য একটি বিশেষ সুযোগ। আমি আরও বিশ্বাস করি, আমাদের প্রচেষ্টার মাধ্যমে আমরা এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলে রূপান্তর প্রক্রিয়াকে ত্বরান্বিত করতে পারবো। আমরা আমাদের উন্নত প্রযুক্তি এবং ডিজিটাল রূপান্তরের অভিজ্ঞতা এই অঞ্চলের প্রতিটি দেশে এবং শিল্পখাতে, ব্যবসায় এবং সরকারি ক্ষেত্রে কাজে লাগাতে পারবো।’ 

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল