• বুধবার   ১২ মে ২০২১ ||

  • বৈশাখ ২৯ ১৪২৮

  • || ৩০ রমজান ১৪৪২

আজকের টাঙ্গাইল
সর্বশেষ:
ধুনটে নমুনা শস্য কর্তনের উদ্বোধন বকশীগঞ্জের নিলাক্ষিয়ায় অবৈধ বালু উত্তোলনের ড্রেজার মেশিন ধ্বংস প্রধানমন্ত্রীর উপহার কর্মহীনদের মাঝে তুলে দিলেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী সখীপুরে এমপি’র উন্নোয়নমূলক কাজের প্রশংসা করে গেইট ও বিলবোর্ড বকশীগঞ্জে ৪৪ জন মহিলার মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ সখীপুরে আর্ত-সন্ধ্যাণ ব্লাড ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ বকশীগঞ্জ মাস জুড়ে ইফতার বিতরণ করছে থানা পুলিশ দেওয়ানগঞ্জে দরিদ্র পরিবারদের মাঝে ঈদবস্ত্র ও নগদ অর্থ বিতরণ ঘাটাইল উপজেলা ও পৌর বিএনপির নেতৃবৃন্দকে জেলার সতর্কবার্তা গরীবের সাহায্য আত্মসাৎকারী ভিক্ষুকের চেয়ে খারাপ : মির্জা আজম

সহজ হলো স্পেনের অধিবাসী আইন, সুবিধা পাবে বাংলাদেশিরা

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ২৪ এপ্রিল ২০২১  

ইউরোপের দ্বিতীয় বৃহত্তম দেশ স্পেনে অভিবাসীদের জন্য নাগরিকত্ব আইন আরো সহজ হয়েছে। টানা দুই বছর স্পেনে বসবাসের ডকুমেন্টেসহ ছয় মাস বৈধভাবে কাজ করার প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র জমা দিলে মিলবে বৈধতা।
সম্প্রতি স্পেনের একটি আদালত নাগরিকত্ব আইন সংশোধন করে নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়েছে। ২৫ মার্চ স্পেনের গ্রানাডার একটি আদালত একজন অভিবাসী মহিলার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এ রায় দেন।

ইউরোপের একমাত্র দেশ স্পেন যেখানে ইউরোপের বাইরের তৃতীয় দেশের ক্ষেত্রে মাইগ্রেশন প্রক্রিয়াটা খুবই সহজ এবং নমনীয় যে কেউই খুব সহজেই এখানে থাকার ইচ্ছা পোষণ করলে ন্যূনতম শর্তে বসবাস করার সুযোগ পায়।

এখানে বিদেশিরা ১০ বছর নিয়মিত থাকার পর নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করতে পারে এবং তিন বছর নিয়মিত থাকার পর যদি তাদের সন্তান জন্মগ্রহণ করে তাহলে সে স্প্যানিশ নাগরিকত্ব পায়।

এই আইন অনুযায়ী এখন অনিয়মিতভাবে বসবাসকারী পিতা মাতার সন্তান জন্ম হলেও সে স্প্যানিশ নাগরিকত্ব পাবে বা দুজনের মধ্যে একজন স্পেনে নিয়মিতভাবে বসবাস করলে তাদের সন্তান ও স্প্যানিশ নাগরিকত্ব পাবে।

নতুন আইন অনুযায়ী এক সঙ্গে টানা দুই বছর স্পেনে বসবাসের ডকুমেন্টের সঙ্গে ৬ মাস বৈধভাবে কাজ করার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দিয়ে বৈধ হওয়া যাবে।

আবেদনের নতুন নিয়ম:

স্পেন দুইবছর থেকে বসবাস করছেন এবং বিভিন্ন এসাইলাম নিয়ে কাজের পারমিশন পেয়ে কমপক্ষে ছয়মাস কাজ করেছেন এবং তার বিরুদ্ধে কোনো অপরাধে জড়িত থাকার প্রমাণ না থাকে। শুধুমাত্র তাঁরাই এই আবেদন করতে পারবেন। এছাড়া যাদের পূর্বে স্পেনের রেসিডেন্স কার্ড ছিলো কোনো কারণে তাদের কার্ড বাতিল হয়ে গিয়েছে, তাদের কর্মসংস্থান রেকর্ড প্রতিবেদন (বিদালাবোরাল) ছয় মাসের যদি থাকে তাহলে এ সুবিধার আওতায় পড়বেন।

এ জন্য কোনো কাজের কন্ট্রাকের প্রয়োজন হবে না বা আরাইগো সার্টিফিকেটের প্রয়োজন হবে না। শুধু বিদালাবেরালের কপি এবং বাংলাদেশের পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট হলেই স্পেনে বৈধতা পেতে পারে। এ জন্য যে কেউ চাইলে সরাসরি বৈধতার জন্য আবেদন করতে পারবেন। এই নিয়মের বাইরে অন্যান্যরা এই নিয়মে বৈধতার জন্য আবেদন করতে পারবেন না। পাশাপাশি যারা এসাইলাম কিংবা কাজের পারমিশন ছাড়া স্পেনে বসবাস করছেন তারা ও স্পেনের অভিবাসী হওয়ার জন্য আবেদন করতে পারবেন। তবে এই ক্ষেত্রে সময় একটু বেশি লাগবে।

এছাড়া বৈবাহিক সূত্রে স্পেনের নাগরিকত্ব পেতে হলে পূর্বে তিন বছর সময় লাগতো। কিন্তু বর্তমান আইনে তা দুই বছর করা হয়েছে এবং আরো বিভিন্ন অনুচ্ছেদে সময় উপযোগী কিছু সংশোধন করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রথম সচিব (শ্রম) মুতাসিমুল ইসলাম বলেন, নতুন এই আইনে বাংলাদেশিদের বৈধ হওয়ার সুযোগ তৈরি হলে বাংলাদেশের পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটসহ দূতাবাসের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে।

এ ব্যাপারে মানবাধিকার সংগঠন ভালিয়েন্তে বাংলার সভাপতি মো. ফজলে এলাহী জানান, স্পেনে বিভিন্ন এসাইলাম নিয়ে স্পেনে প্রায় ৫ হাজার বাংলাদেশী অভিবাসী রয়েছেন। তারা অধিকাংশ এর আওতায় বৈধ হওয়ার সুযোগ রয়েছে। এ জন্য কাউকে কোনো দালাল কিংবা উকিলের শরণাপন্ন না হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল