• বুধবার   ১২ মে ২০২১ ||

  • বৈশাখ ২৯ ১৪২৮

  • || ৩০ রমজান ১৪৪২

আজকের টাঙ্গাইল
সর্বশেষ:
ধুনটে নমুনা শস্য কর্তনের উদ্বোধন বকশীগঞ্জের নিলাক্ষিয়ায় অবৈধ বালু উত্তোলনের ড্রেজার মেশিন ধ্বংস প্রধানমন্ত্রীর উপহার কর্মহীনদের মাঝে তুলে দিলেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী সখীপুরে এমপি’র উন্নোয়নমূলক কাজের প্রশংসা করে গেইট ও বিলবোর্ড বকশীগঞ্জে ৪৪ জন মহিলার মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ সখীপুরে আর্ত-সন্ধ্যাণ ব্লাড ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ বকশীগঞ্জ মাস জুড়ে ইফতার বিতরণ করছে থানা পুলিশ দেওয়ানগঞ্জে দরিদ্র পরিবারদের মাঝে ঈদবস্ত্র ও নগদ অর্থ বিতরণ ঘাটাইল উপজেলা ও পৌর বিএনপির নেতৃবৃন্দকে জেলার সতর্কবার্তা গরীবের সাহায্য আত্মসাৎকারী ভিক্ষুকের চেয়ে খারাপ : মির্জা আজম

সবুজের এমবিবিএস পড়ার দায়িত্ব নিলেন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ২৪ এপ্রিল ২০২১  

অভাব-অনটনের কারণে চিকিৎসক হওয়ার স্বপ্নই থেকে যাচ্ছিল ভ্যান চালকের ছেলে সবুজের। অদম্য ইচ্ছা শক্তি নিয়েই সবুজ এবার ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস কোর্সে ভর্তি পরীক্ষায় এ.জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ সিলেট-এ ভর্তির সুযোগ পেয়েছে।
পরিবারে অভাব অনটনই তাদের নিত্যদিনের সঙ্গী। সবুজের ডাক্তরি লেখাপড়ার স্বপ্ন পূরণের জন্য তার পুরো দায়িত্ব নিয়েছেন টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জেব-উন-নাহার লিনা বকল।

সবুজের পুরো নাম আশরাফুল ইসলাম সবুজ। সে টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী উপজেলার পাইস্কা ইউনিয়নের কয়ড়া পূর্বপাড়া গ্রামের ভ্যান চালক আব্দুর রশিদের ছেলে। তারা দুই ভাই। ছোট ভাই সবিজ রায়হান ধনবাড়ী মডেল কলেজিয়েট স্কুলের নবম শ্রেণির।

খবরটি বুধবার ও গতকাল বৃহস্পতিবার বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক, আনলাইন ও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে প্রকাশ হওয়ার পর বিয়য়টি ধনবাড়ী উপজেলার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জেব-উন-নাহার লিনা বকলে নজড়ে আসে। পরে জেব-উন-নাহার লিনা বকল স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীদের গতকাল বৃহস্পতিবার বিষয়টি নিশ্চিত করে। পরে সবুজের পরিবারের সাথে গণমাধ্যমকর্মীদের মাধ্যমে যোগাযোগ করে এবং তার মেডিকেলে পড়ার যাবতীয় দায়িত্ব তিনি নেন।

এ ব্যাপারে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জেব-উন-নাহার লিনা বকল বলেন, বিভিন্ন গণমাধ্যমে জানার পর মেধাবী শিক্ষার্থী সবুজের পড়ার দায়িত্ব নিয়েছি। ওর পড়ালেখার জন্য আমি চেষ্টা করে যাবো। ও যেন ভালোভাবে লেখাপড়া করে ভালো একজন ডাক্তার হতে পারে। সমাজের অভাবী মানুষের সেবা করতে পারে। এছাড়াও আমি অভাবী মেধাবী শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার জন্য নানাভাবে সহযোগিতা করে থাকি।

সবুজের পড়ালেখার দায়িত্ব নেয়ার পর সবুজের বাবা-মা জানান, এতে আমরা অনেক খুশি। সবুজ ডাক্তার হবে। আমরা গরিব মানুষ। ভ্যান চালিয়ে দিন আনি দিন খাই। আমার পক্ষে তার মেডিকেলের পড়াশোনা করার মত সামর্থ ছিল না। আমরা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের কাছে চির কৃতজ্ঞ।
সবুজ বলেন, মহিলা ভাইস চেয়াম্যান ম্যাম আমার পড়ার দায়িত্ব নিয়েছে। আমি এবং আমার পরিবার অনেক খুশি। যা বলতেই পারবো না। আমি চিকিৎসক হওয়ার পর মানুষের সেবা করাই থাকবে আমার মূল লক্ষ।

এদিকে সবুজের পড়ালেখার দায়িত্ব গ্রহণের খবরটি প্রকাশ হওয়ার পর এলাকাবাসী, সুশীল সমাজ ও সবুজ যে স্কুল থেকে জেএসসি ও এসএসসি পাস করেছেন সেই স্কুলের প্রধান শিক্ষক এসএম মাসুদ কবির ধন্যবাদ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানকে জানান।

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল