• বৃহস্পতিবার   ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ||

  • ফাল্গুন ১৫ ১৪২৬

  • || ০৩ রজব ১৪৪১

আজকের টাঙ্গাইল
৮৮

পাতা কুড়াতে ঘাটাইলে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণ

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলায় চতুর্থ শ্রেণির এক ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গতকাল রোববার (৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বাড়ির পাশে পাতা কুড়াতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হয় ওই স্কুলছাত্রী। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে আজ সোমবার অভিযুক্ত রফিজ উদ্দিন ওরফে অপু(৪৫)কে একমাত্র আসামি করে ঘাটাইল থানায় মামলা দায়ের করেছেন। পরে বিকেলে ওই ছাত্রী টাঙ্গাইল আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ওই ছাত্রী রোববার সকালে রান্নার কাজে ব্যবহারের জন্য বাড়ির পাশের কদ্দুছ মন্ডলের বাগানে পাতা কুড়াতে যায়। দুপুরে একই গ্রামের রফিজ উদ্দিন অপু (৪৫) তাকে একা পেয়ে মুখ গামছা দিয়ে বেঁধে ধর্ষণ করে। অপু তাকে ধর্ষণের বিষয়টি কাউকে না জানানোর জন্য হুমকি দিয়ে চলে যায়। মেয়েটি বাড়ি গিয়ে ঘটনাটি তার মাকে বললে বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হয়। পরে তার বাবা অপুকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন।


 
মামলা সূত্রে জানা যায়, গতকাল রোববার দুপুরে নির্যাতনের শিকার স্কুলছাত্রী বাড়ির পাশের কুদ্দুছ মণ্ডলের আকাশমনি কাঠ বাগানে শুকনো পাতা কুড়াতে যায়। ওই সময় একই গ্রামের রফিজ উদ্দিন ওরফে অপু তাকে একা পেয়ে গামছা দিয়ে মুখ বেঁধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এরপর ধর্ষণের বিষয়টি কাউকে না জানানোর জন্য হুমকি দিয়ে চলে যায় রফিজ। রাতে ধর্ষণের ঘটনাটি ওই ছাত্রী তার বাবা-মাকে জানালে তারা বিষয়টি তাৎক্ষণিক মোবাইল ফোনে ইউপি সদস্য কুদরত আলীকে অবগত করেন। পরে রাতেই কুদরত আলী বিষয়টি চেয়ারম্যান এমদাদুল হক সরকারকে জানান। পরে চেয়ারম্যান দু’জন গ্রাম পুলিশকে অভিযুক্ত রফিজকে ধরতে পাঠান।

ইউপি সদস্য কুদরত আলী বলেন, রাতে আমি আমার ঘাটাইল বাসায় ছিলাম। অটল ও কৃষ্ণ নামের দুজন গ্রাম পুলিশ আমাকে ফোন করে জানায়, রফিজকে ধরে আটকে রাখা হয়েছে। কিছুক্ষণ পর আবার তারা ফোন করে বলে, রফিজ তাদের হাত থেকে ছুটে বনের দিকে পালিয়ে গেছে।

এ ব্যাপারে ঘাটাইল থানার এসআই মতিউর রহমান বলেন, মামলার পর আজ সোমবার (১০ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে ওই ছাত্রীর টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। একই সাথে সে আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন। অভিযুক্ত ধর্ষককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে তিনি জানান।


 
এ বিষয়ে ঘাটাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মো.ছাইফুল ইসলাম বলেন,  নির্যাতনের শিকার স্কুলছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ধর্ষক রফিজকে আটকের চেষ্টা চলছে।

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল
টাঙ্গাইল বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর