• সোমবার   ১০ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২৬ ১৪২৭

  • || ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

আজকের টাঙ্গাইল
সর্বশেষ:
পুনরায় বিজয়ী হওয়ায় রাজাপাকসেক কে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন পাহাড়ে থাকা উপজাতিদের বুঝতে হবে ও নির্ধারণ করতে হবে তারা কি চান? আদিবাসী বিষয়ক আন্তর্জাতিক সনদ বাস্তবায়ন করতে বাংলাদেশ প্রেক্ষাপট কাজিপুরে বঙ্গমাতা সাংস্কৃতিক জোটের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত বঙ্গবন্ধু-বঙ্গমাতা মাটির দিকে চেয়ে চলতে শিখিয়েছেন : প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে বসবাসকারী উপজাতিরা কি Indigenous নাকি Tribe? আজ বিশ্ব আদিবাসী দিবস উদযাপন নিয়ে পাহাড়ে ধুম্রজাল ভূঞাপুরে জাতীয় শোক দিবসের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত ভূঞাপুরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ খামারীদের মাঝে গো-খাদ্য বিতরণ ঘাটাইলের ছয়ানী বকশিয়া দাখিল মাদরাসায় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি
৩৯

দশ টাকায় ব্যাংক হিসাব খুলে নেওয়া যাবে সরকারি সহায়তা

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ৮ জুলাই ২০২০  

বৈশ্বিক মহামারি নভেল করোনা ভাইরাসের কারণে ক্ষতিগ্রস্তরা মোবাইল ব্যাংকিং হিসাবের পাশাপাশি ১০ টাকায় ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলেও নগদ অর্থ সহায়তা নিতে পারবেন। যাদের মোবাইল ফোন নেই বা মোবাইল ব্যাংকিং হিসাব খোলা সম্ভব না তাদের সুবিধার জন্য এই সুযোগ দেওয়া হয়েছে। সহজে এসব অ্যাকাউন্ট খোলার ব্যবস্থা করতে সোমবার ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহীদের নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

 

শুধুমাত্র জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার প্রত্যায়নের ভিত্তিতে অ্যাকাউন্ট খোলার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।করোনা ভাইরাসে ক্ষতিগ্রস্ত ৫০ লাখ পরিবারকে আড়াই হাজার টাকা করে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। শুরুতে পুরো অর্থ মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। এর মধ্যে ডাক বিভাগের মোবাইল ব্যাংকিং সেবা নগদের মাধ্যমে ১৭ লাখ পরিবারকে অর্থ দেওয়ার কথা।

 

এছাড়া ১৫ লাখ পরিবারকে বিকাশ, ১০ লাখ পরিবারকে রকেট এবং ৮ লাখ পরিবারকে শিওরক্যাশ অর্থ পৌঁছে দেওয়ার কথা। তবে অর্ধেক পরিবারের কাছেও এই সহায়তা এখনো পৌঁছেনি বলে জানা গেছে। এছাড়া মোবাইল ব্যাংকিংয়ে অর্থ বিতরণে নানা অনিয়মের খবর পাওয়া গেছে। এরকম অবস্থায় ব্যাংকগুলোকে এই সেবায় যুক্ত করা হলো।

 

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, মুজিববর্ষে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ৫০ লাখ পরিবারের মধ্যে নগদ অর্থ সহায়তা দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে কিছু সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যে সব উপকারভোগীদের মোবাইল ফোন নেই বা যাদের পক্ষে এমএফএস হিসাব খোলা সম্ভব নয় তাদের অনুকূলে শুধুমাত্র জাতীয় পরিচয়পত্র বা স্মার্ট কার্ডের তথ্য এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার প্রত্যয়নের ভিত্তিতে ১০ টাকা জমা নিয়ে হিসাব খোলা যাবে।

 

চেক বই না থাকলে ডেবিট ভাউচারের মাধ্যমে এধরনের উপকারভোগীকে অর্থ দেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। কোন উপকারভোগী আগে থেকে ব্যাংকের হিসাবধারী হলে তার নতুন করে ব্যাংক হিসাব খোলার প্রয়োজন নেই। এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল
অর্থনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর