• বৃহস্পতিবার   ০৯ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৫ ১৪২৭

  • || ১৮ জ্বিলকদ ১৪৪১

আজকের টাঙ্গাইল
৭৯

ত্রাণ বিতরণে অনিয়মকারীদের বিরুদ্ধেও উচ্চকণ্ঠ প্রধানমন্ত্রীর

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ৫ জুন ২০২০  

প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের শঙ্কা আর প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যেই এক অনিশ্চিত পরিস্থিতির মুখোমুখি বাংলাদেশ। গেলো দু'মাসে করোনা মোকাবিলার পাশাপাশি ঘূর্ণিঝড় আম্পানের আঘাতও সহ্য করেছে দেশবাসী। মানুষের প্রাণ বাঁচিয়ে করোনা যুদ্ধে উত্তরণের জন্য, বিরতিহীন শ্রম দিচ্ছেন সরকারপ্রধান শেখ হাসিনা।

 

টানা তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় থাকা চতুর্থ বারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।অস্বাভাবিক এই পরিস্থিতিতে সামগ্রিক দিক সামলাতে গণভবন থেকেই প্রধানমন্ত্রী চালিয়ে যাচ্ছেন সার্বিক দাপ্তরিক কর্মকান্ড। তাঁর নজরদারিতে বাদ যায়নি চিকিৎসকের সুরক্ষা নিশ্চিতসহ শ্রমজীবী মানুষের খাদ্য সংকট মেটানো পর্যন্ত।

 

এই করোনা সংকটের মধ্যেই মাঠের ধান দ্রুত সংগ্রহের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। কৌশলী এই পদক্ষেপে কোনো রকম ক্ষয়ক্ষতি ছাড়াই ফসল উঠেছে কৃষকের ঘরে। ধান উৎপাদনেও বৈশ্বিক সূচকে এক ধাপ এগিয়ে যায় দেশ।

 

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের যুদ্ধে যখন প্রতিদিনই বাড়ছে মৃতের তালিকা, তখনই আঘাত এলো ঘূর্ণিঝড় আম্পানের। দিশেহারা লাখ লাখ উপকূলবাসীকে নিরাপদে রেখে দুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর নির্দেশনা দেন শেখ হাসিনা।

করোনাকালে সরকারি ত্রাণ পেয়েছে ৬ কোটিরও বেশি মানুষ

বৈশ্বিক মহামারি নভেল করোনা ভাইরাসের দুর্যোগকালিন সারাদেশের সাধারণ মানুষের কষ্ট লাঘবে ত্রাণ সহায়তা অব্যাহত রেখেছে বাংলাদেশ সরকার। এ পর্যন্ত সারা দেশে সোয়া এক কোটির বেশি পরিবারের ছয় কোটির বেশি মানুষ এই ত্রাণ সহায়তা পেয়েছে।

 

জানা যায়, ৬৪ জেলা প্রশাসন থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী ২৭ মে পর্যন্ত সারাদেশে জিআর চাল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে এক লাখ ৮২ হাজার ৬৭ টন এবং বিতরণ করা হয়েছে এক লাখ ৬২ হাজার ১৯৩ টন। এতে উপকারভোগী পরিবার সংখ্যা ১ কোটি ৩৪ লাখ ২৩ হাজার ৫০৪টি এবং উপকারভোগী লোকসংখ্যা ৬ কোটি ৩ লাখ ৭৪ হাজার ৬৮২ জন।

 

নগদ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে প্রায় ১০৫ কোটি টাকা। এরমধ্যে জিআর নগদ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে ৮১ কোটি ৭৩ লাখ ৭২ হাজার ২৬৪ টাকা এবং বিতরণ করা হয়েছে ৭১ কোটি ৮১ লাখ ৫৭ হাজার ২৭১ টাকা। এতে উপকারভোগীর পরিবার সংখ্যা ৭৯ লাখ ৫৮ হাজার ৩০৪টি এবং উপকারভোগী লোক সংখ্যা ৩ কোটি ৭৫ লাখ ১০ হাজার ৮৫৮ জন।

 

শিশু খাদ্য সহায়ক হিসেবে বরাদ্দ ২২ কোটি ৩৪ লাখ টাকা এবং এ পর্যন্ত বিতরণ করা হয়েছে ১৮ কোটি ৮ লাখ ৬৫ হাজার ২২০ টাকা। এতে উপকারভোগী পরিবার সংখ্যা ৫ লাখ ৫৯ হাজার ৭৭৯টি এবং লোক সংখ্যা ১২ লাখ ১৫ হাজার ৭৫৯ জন বলেও জানিয়েছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়।

 

সর্বশেষ ২৭ মে'র তথ্য অনুযায়ী বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের মোট সংখ্যা ৩৮,২৯২। ইতোমধ্যে সুস্থ হয়েছেন অন্তত ৭,৯২৫ জন আর মারা গেছেন ৫৪৪ জন।

 

ত্রাণ বিতরণে অনিয়মকারীদের বিরুদ্ধেও উচ্চকণ্ঠ সরকার প্রধান

মানুষের পাশে থেকে মহামারীর শেষ পর্যন্ত দেশের সক্ষমতা টিকিয়ে রাখতে নিরন্তর চেষ্টায় দৃঢ়সংকল্পবদ্ধ বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা।

 

করোনার কারণে সরকারি সাহায্যের তালিকায় দলমত নির্বিশেষে সবাইকে রাখা এবং ত্রাণে নয়-ছয় হলে দল না দেখে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। সরকারের পক্ষ থেকে অভাবে পড়া মানুষদের ত্রাণ দেওয়া শুরু হলে, দলমত বিবেচনা না করে সঠিক তালিকা তৈরি করে প্রকৃত অসহায় মানুষের কাছে ত্রাণসহ সরকারের সহযোগিতা পৌঁছে দিতে জনপ্রতিনিধি, দলের নেতাকর্মী ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একইসঙ্গে ত্রাণ বিতরণে অনিয়ম ও দুর্নীতিতে জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য স্থানীয় প্রশাসনকে নির্দেশ দেওয়া হয়। এসব অভিযোগে গত ২ জুন পর্যন্ত ৮৫ জন জনপ্রতিনিধিকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

 

করোনা ভাইরাসের প্রভাবে লকডাউন পরিস্থিতিতে কৃষকদের ধান কাটা কিংবা গার্মেন্টস শ্রমিকদের বেতন বোনাস নিশ্চিত করা, দরিদ্রের নগদ অর্থ সহায়তা দেওয়া এমনকি তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের সাহায্যের আওতায় আনা শক্ত হাতে গুরুত্বপূর্ণ নীতি সিদ্ধান্তের বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

 

করোনা সঙ্কটে’র শুরু থেকেই সরকার প্রশাসনের উপর নির্ভর করে সঙ্কট মোকাবে’লা করতে চাইছে এবং এই সময়ে অনেকের দায়িত্ব পালনে প্রধানমন্ত্রী সন্তুষ্ট নন। অনেকর এই সঙ্কট মোকাবেলা’য় যেভাবে নিষ্ঠা’র সঙ্গে দায়িত্ব পালন করা উচিত ছিল, সেই নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করতে পার’ছে না। এই সমস্ত বাস্তবতায় সরকা’র প্রশাসনে’র উচ্চপদে, বিশেষ করে সচিব, অতিরি’ক্ত সচিব পদে একাধি’ক রদব’দল হতে পারে বলে একাধি’ক দায়িত্ব’শীল সূত্র নিশ্চিত করেছে।

 

শেখ হাসিনার এই শুদ্ধি অভিযানে’র মূল লক্ষ্য হলো করোনা সঙ্কটের প্রেক্ষি’তে সামনে গিয়ে আমাদের যে কঠিন দিন’গুলো আসছে, সেই কঠিন দিনগুলো’তে যেন সরকার অত্যন্ত দৃঢ়তা’র সাথে দ্রুত কার্যকর এবং দূর্নীতি’মুক্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারে।

আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল
জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর