• মঙ্গলবার   ১৮ মে ২০২১ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৩ ১৪২৮

  • || ০৬ শাওয়াল ১৪৪২

আজকের টাঙ্গাইল

‘আ. লীগের মনোনয়নে প্রত্যাশা অনুযায়ী পরিবর্তন আসেনি’

আজকের টাঙ্গাইল

প্রকাশিত: ২২ ডিসেম্বর ২০১৮  

‘আ. লীগের মনোনয়নে প্রত্যাশা অনুযায়ী পরিবর্তন আসেনি’

‘আ. লীগের মনোনয়নে প্রত্যাশা অনুযায়ী পরিবর্তন আসেনি’

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মনোনয়নে প্রত্যাশা অনুযায়ী পরিবর্তন আসেনি। তবে সব মিলিয়ে ভালো হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান। তিনি বলেন, এতো দিন বিভিন্ন মহলে আলোচনা চলছিলো প্রায় ৮০ থেকে ১০০ আসনে পরিবর্তন আসবে। এমনকি আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের কাছ থেকেও এমনটা শুনেছি। সে কারণে পরিবর্তনের একটা প্রত্যাশা তৈরি হয়েছিলো কিন্তু প্রত্যাশা অনুযায়ী পরিবর্তন আসেনি।   তিনি আরও বলেন, আসছে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ উন্নয়নের ওপরে জোর দেবে। গত দশ বছরে আওয়ামী লীগ যে উন্নয়ন করেছে এবং ভবিষ্যতের জন্য যে উন্নয়ন পরিকল্পনা করেছে জনগণের সামনে সেটা তুলে ধরতে চায়। তাহলে উন্নয়নের বিষয়টি তুলে ধরতে হলে, এই উন্নয়নের সাথে যারা সংশিলিষ্ট তাদেরকেই মনোনয়ন দেওয়াটা যৌক্তিক মনে করেছে। আমরা যদি বিশ্বাস করি গত দশ বছরে দেশে প্রচুর উন্নয়ন হয়েছে, তাহলে সেই উন্নয়নে তো বর্তমান সংসদ সদস্যদের অবদান রয়েছে। একই সাথে, যাদের মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে বড় রকমের কোনো অভিযোগও নেই। এক্ষেত্রে সব মিলিয়ে মনোনয়ন ভালো হয়েছে বলে মনে হচ্ছে। এক প্রশ্নের জবাবে এই রাজনৈতিক বিশ্লেষক বলেন, বদির বিরুদ্ধে অভিযোগ আছে কিন্তু কোনো অপরাধ প্রমাণিত হয়নি বা শাস্তি হয়নি। তারপরেও তাকে বাদ দেওয়া হয়েছে। সেই আসনে তার স্ত্রীকে দেওয়া হয়েছে। স্বামীর অভিযোগে তো আর তাকে অভিযুক্ত করা যাবে না। কিন্তু যিনি মানি লন্ডারিং এবং গ্রেনেড হামলা মামলায় আদালতে সাজাপ্রাপ্ত হয়েছেন। আদালতে প্রমাণিত একজন খুনি নির্বাচনের সম্পূর্ণ কার্যক্রম পরিচালনা করছে। মনোনয়ন প্রতাশীদের সাক্ষাৎকার নিচ্ছে। সেখানে কিন্তু কেউ প্রশ্ন তুলছে না। সেটা নিয়ে কারো কোনো মাথা-ব্যথা নেই। এই হচ্ছে আমাদের সোসাইটি। প্রশ্ন তুললে সব দিকেই তুলতে হবে। একজন অপরাধীকে উৎসাহ দিবো আর অন্যজনের সমালোচনা করবো, এটা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য হতে পারে না। 
আজকের টাঙ্গাইল
আজকের টাঙ্গাইল